ব্যাংকিং নীতির বাইরে হিসাব বন্ধ নয়

Bangladesh Bank
Bangladesh Bank
বাংলাদেশ ব্যাংক

বিভিন্ন ব্যাংক গ্রাহকের হিসাব ‘সুপ্ত’ হিসেবে না রেখে একেবারে বন্ধ করে দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে বলা হয়েছে, ব্যাংকিং নীতির বাইরে গিয়ে কোনো গ্রাহকের ব্যাংক হিসাব বন্ধ করা যাবে না। দেশের সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীর কাছে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়ে সোমবার এই প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ব্যাংক ২৪ জুলাই ২০০৫ তারিখে একটি প্রজ্ঞাপন জারির করে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশ দিয়েছিল- ৩০ এপ্রিল ২০০২ তারিখের পূর্বের যে সব ব্যাংক হিসাব রয়েছে সেগুলোর কেওয়াইসি প্রসিডিউর (গ্রাহকের পূর্ণাঙ্গ তথ্য) ৩১ মার্চ ২০১০ এর মধ্যে সম্পন্ন করার। সেটা গ্রাহককে চিঠি পাঠিয়ে বা যেকোনোভাবে করতে হবে। নির্দিষ্ট সময়ে যাদের কেওয়াইসি সম্পন্ন না হবে তাদের ব্যাংক হিসাবকে ‘সুপ্ত’ হিসেবে চিহ্বিত করতে বলা হয়েছিল। সুপ্ত হিসাবের এ সব গ্রাহক ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন না। তবে জমা করতে পারবেন। আর যদি তিনি সে হিসাব আবার সচল করতে চান তবে তা করতে হবে শাখা ব্যবস্থাপকের কাছে আবেদন করে এবং কেওয়াইসি প্রসিডিউর সম্পন্ন করে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে অভিযোগ রয়েছে, এসব হিসাব ‘সুপ্ত’ হিসেবে না রেখে একেবারে বন্ধ করে দিয়েছে বিভিন্ন ব্যাংক। এর ভিত্তিতেই বাংলাদেশ ব্যাংক এ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

এতে বলা হয়েছে- ‘কোনো কোনো ব্যাংক বর্ণিত নির্দেশনা যথাযথভাবে অনুসরণ না করে ৩০ এপ্রিল ২০০২ তারিখের পূর্বে খোলা হিসাবসমূহের মধ্যে কেওয়াইসি সম্পন্ন না করা হিসাবসমূহ ‘সুপ্ত’ হিসেবে চিহ্নিত করার পরিবর্তে বন্ধ করে দিচ্ছে; যা এ এম এল সার্কুলার নম্বর ২৩ এর নির্দেশনার লংঘন।’

তাই কোনো ব্যাংক ব্যাংকিং নীতির বাইরে কোনো হিসাব বন্ধ না করার এই নির্দেশ দিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এসএই/এসএম