জবি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ২ কর্মী আহত  

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়
ছবি: ফাইল ছবি

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে দুজন আহত হয়েছেন। বুধবার সকাল ১০টার দিকে ছাত্রলীগের জবি শাখার সভাপতি শরিফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলামের সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

অহতরা হলেন ছাত্রলীগের জবি শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর রহমান ও কর্মী জামাল উদ্দিন। তারা সিরাজুল ইসলামের সমর্থক। স্থানীয় হাসপাতালে তাদের চিকিত্সা দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গত সোমবার সভাপতি সমর্থক জাহিদুল ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক সমর্থক আমিনুল ইসলামের মধ্যে বাগবিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এরপর আমিনুল ইসলামকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়। এর জের ধরে সভাপতির পক্ষের নেতা-কর্মীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বুধবার সকাল ১০টায় ক্যাম্পাসের কাঁঠালতলায় অবস্থান নেয়। অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদক সমর্থকরা ক্যাম্পাসের শহীদ মিনারের সামনে অবস্থান নেয়।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সভাপতির পক্ষের কর্মীরা সাধারণ সম্পাদকের পক্ষের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা চালান। এতে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে তানভীর ও জামাল আহত হন।

বেলা ১১টার দিকে সাধারণ সম্পাদকের পক্ষের নেতা-কর্মীরা ধাওয়া করলে সভাপতির পক্ষের নেতা-কর্মীরা ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে যান। দুপুর ১২টার দিকে সাধারণ সম্পাদকের পক্ষের কর্মীরা ক্যাম্পাসের ভিতরে এবং সভাপতির পক্ষের কর্মীরা ক্যাম্পাসের বাইরে অবস্থান করছিলেন। দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম অভিযোগ করেন, সোমবারের ঘটনায় তার এক কর্মীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তারপরও সভাপতির পক্ষের কর্মীরা তার পক্ষের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে।

সভাপতি শরিফুল ইসলাম বলেন, ক্যাম্পাসে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। কয়েকজন কর্মীর মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অশোক কুমার সাহা বলেন, ঘটনার পর ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে বলে জানান তিনি।