লংমার্চ নদী বাঁচানোর আন্দোলন: ফখরুল

  • Emad Buppy
  • April 23, 2014
  • Comments Off on লংমার্চ নদী বাঁচানোর আন্দোলন: ফখরুল
fokhrul

fokhrulদেশের সব অভিন্ন নদীকে বাঁচানোর দাবি জানিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার দুপুরে তিস্তা ব্যারেজ প্রকল্পের সম্মুখে আয়োজিত লংমার্চ সমাবেশে তিনি এ দাবি জানান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফখরুল বলেন, শুধু লংমার্চে কাজ হবে না। তিস্তাসহ সব নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা আদায়ে একটি গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। যে সরকার কারও গোলামি বা তাবেদারি না করে নিজের দেশের অধিকার আদায়ে নির্ভয়ে কাজ করে যাবে।এ সময় নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

এর আগে বুধবার সকাল ৯টায় রংপুর বাসস্ট্যান্ড পথসভা শেষে তিস্তার উদ্দেশ্যে রওনা দেয় লংমার্চ। তারা ডালিয়া পয়েন্টে যাওয়ার এক কিলোমিটার আগে থেকেই হেটে সেখানে রওনা হয়।

লংমার্চ সমাবেশস্থলে পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শুরু হয় সমাবেশের কার্যক্রম। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও লালমনিরহাট জেলা বিএনপির সভাপতি আসাদুল হাবিব দুলু। সমাবেশ শুরুর আগেই কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় ব্যারেজ প্রকল্পের সম্মুখ।

মঙ্গলবার রাতে রংপুরে যাত্রাবিরতি শেষে বুধবার সকালে স্থানীয় পাবলিক লাইব্রেরি মাঠের পথসভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের পর তিস্তা অভিমুখে ‍যাত্রা শুরু করে লংমার্চ।

রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি মাঠ সংলগ্ন কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এটি আমাদের অধিকার আদায়ের যাত্রা, ন্যায্য হিস্যা বুঝে পাওয়ার অভিযাত্রা। আমরা পানির ন্যায্য হিস্যা পাচ্ছি না।

লংমার্চে মির্জা ফখরুলের সাথে আছেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, অর্থনৈতিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, আন্তর্জাতিক সম্পাদক ড.আসাদুজ্জামান রিপন, শিক্ষা সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, যুবদলের সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল,  ছাত্র দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক নাসির প্রমুখ।

এমআর/কেএফ