খাতায় লিখবে মিনি পকেট প্রিন্টার

pocket_printerআজকাল কম্পিউটারের বিপরীত হিসেবে মানুষ ব্যবহার করছে নানা সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন স্মার্টফোন। কিন্ত এই সব ফোনে কোনো ডকুমেন্ট লেখার পর তা প্রিন্ট করতে গেলে পড়তে হয় বিপত্তিতে। যেতে হয় কোনো কম্পিউটারের দোকানে কিংবা কোনো সাইবার ক্যাফে। কারণ কম্পিউটারে সংযুক্ত প্রিন্টার তো আর ঘাড়ে করে বয়ে বেড়ানো সম্ভব হয় না।

আর সেই অসম্ভবকে এবার সম্ভব করছে ইসরাইল ভিত্তিক প্রযুক্তি কোম্পানি জুটা ল্যাবস। সম্প্রতি তারা একটি মিনি রোবট প্রিন্টার বাজারের আনার ঘোষণা দিয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটি বলছে, মুদ্রণ শিল্পে  আবারও একবার যুগান্তকারী বিপ্লব ঘটানোর লক্ষ্য নিয়ে তারা এই উদ্যোগ হাতে নিয়েছে।  তারা বলছে, প্রিন্টারটির আকার চার ইঞ্চি বাই সাড়ে চার ইঞ্চি, ওজন ৩০০ গ্রাম। এর গতি মিনিটে ১.২ পেইজ। রয়েছে ব্লুটুথ কানেকটিভিটি, চার্জ থাকবে একঘণ্টা। এছাড়া এতে থাকবে অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস, লিনাক্স ও ওএসএক্স অপারেটিং সিস্টেম। তাই চাইলে সহজেই পকেটে করে বয়ে বেড়ানো যাবে এটি।  ২০১৫ সালের মধ্যে এটি বাজারে ছাড়া হতে পারে জানিয়েছে ইসরাইল ভিত্তিক প্রযুক্তি কোম্পানিটি।

শনিবার ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোনো পেইজ প্রিন্ট করার জন্য প্রথমত স্মার্টফোন অথবা পিসির সাথে সংযুক্ত রাখতে হবে যন্ত্রটি। এরপর ডকুমেন্টের অপশনের গিয়ে প্রিন্ট কমান্ড করার সাথে সাথে এটি সাদা কাগজের ওপর লিখতে শুরু করবে। প্রতিষ্ঠানটির এক মুখপাত্র জানান, শুধু এ-ফোর  কিংবা  এ-ফাইভ সাইজের কাগজে নয় , এটি যে কোনো ধরনের সাইজের কাগজে লিখতে সক্ষম।

mini

তিনি আরও জানান, এর  নিচে সংযুক্ত রয়েছে দুইটি চাকা। যাতে করে তা সাদা কাগজের ওপরে সহজেই চলাফেরা করতে পারে। এছাড়া আপনি যেভাবেই যন্ত্রটিকে নির্দেশনা দিবেন তেমনিভাবে এটি পরিচালিত হবে বলে জানান তিনি।

এস রহমান/