চৌধুরী আলম ও ইলিয়াস আলী গুম হওয়ার পর ভূমিকা নেননি প্রধানমন্ত্রী: মাহমুদুর রহমান

  • Emad Buppy
  • April 18, 2014
  • Comments Off on চৌধুরী আলম ও ইলিয়াস আলী গুম হওয়ার পর ভূমিকা নেননি প্রধানমন্ত্রী: মাহমুদুর রহমান
manna

mannaপ্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের কারণেই বেলার প্রধান নির্বাহী রিজোয়ানার স্বামী অপহরণ হওয়ার পর ফিরে এসেছেন। তাহলে তো এটা স্পষ্ট যে, চৌধুরী আলম ও ইলিয়াস আলী গুম হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী তাদের উদ্ধারের জন্য কোনো পদক্ষেপ নেননি এমন মন্তব্য করলেন নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে নাগরিক ঐক্য আয়োজিত প্রয়াত সাংবাদিক ও কলামিস্ট এ বি এম মূসার স্মরণসভায় তিনি এ কথা বলেন।

স্বামীকে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের কারণে ফিরে পেয়েছেন রিজোয়ানার গণমাধ্যমে বলা এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, গুম হওয়া অন্যদের ক্ষেত্রে এই ভূমিকা নিলে তাদেরকেও ফিরে পাওয়া যেত।

মান্না আরও বলেন, রিজোয়ানার স্বামী আবু বকর সিদ্দিকীকে অপহরণ করার পর আবার ফিরিয়েও দেওয়া হলো কিন্তু ঠিক কি কারণে কারা তাকে অপহরণ করলো তা এখনও স্পষ্ট নয়।

আইন ও সালিশ কেন্দ্রের তথ্য মতে, গত চার বছরে সাড়ে ৪’শ এর উপর মানুষ অপহৃত হয়েছে বলেও জানান তিনি।

নিউ এজ পত্রিকার সম্পাদক নুরুল কবির বলেন, সামাজিকভাবে সর্বস্তরের মানুষ রিজোয়ানার স্বামী অপহরণের বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া দেখানোর কারণে অপহরণকারীরা বুঝতে পেরেছে এই বিষয়টিকে তারা সামলাতে পারবে না। তাই তাকে ছেড়ে দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী যদি এক্ষেত্রে হস্তক্ষেপ করে থাকেন তবে তাকে অবশ্যই ধন্যবাদ জানাতে হবে। কিন্তু কি কারণে রিজোয়ানার স্বামী অপহৃত করা হলো তা বের করা একান্ত প্রয়োজন।

কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, অপহরণকারীরা রিজোয়ানার স্বামীকে অপহরণের পর ছেড়ে দিয়েছে। আবার তার পকেটে ৩’শ টাকাও দিয়েছে। তাই সন্তুষ্ট হয়ে অপহরণকারীদের ভালো মানুষ হিসেবে আখ্যা দিয়ে বিষয়টিকে চাপা দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর উচিত তিনি ঠিক কি কারণে অপহৃত হয়েছেন তা সঠিক তদন্তের মাধ্যমে বের করা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল এ বি এম মূসা সম্পর্কে বলেন, হুমায়ুন আহমেদের বইয়ে বলা তুই রাজাকারের মত করে মূসা সাহেব এই সরকারকে ‘তুই চোর’ বলে সম্বোধন করেছেন। এই কারণে সরকারের ভেতরকার চোরেরা মূসা সাহেবকে জড়িয়ে নানা কুৎসা রটনা করেছে। তাকে রাজাকার বলার চেষ্টাও করেছে। এমন কি মৃত্যুর পর তাকে প্রাপ্য সম্মানটুকু পর্যন্ত দেয়নি।

মাহমুদুর রহমান মান্নার সভাপতিত্বে এ সময় স্মরণসভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, দৈনিক মানবজমিনের সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজনের সাধারণ-সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার, গণফোরামের সাধারণ-সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু প্রমুখ।

জেইউ/এএস