বৈশ্বিক উষ্ণতা সচেতনতায় কুবি বিএনসিসির সাইকেল ভ্রমণ শুরু

  • Emad Buppy
  • January 30, 2014
  • Comments Off on বৈশ্বিক উষ্ণতা সচেতনতায় কুবি বিএনসিসির সাইকেল ভ্রমণ শুরু
comilla university

comilla university‘সবার আগে দেশের প্রতি দায়বদ্ধতা’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সাইকেলে চড়ে সারা বাংলাদেশ ভ্রমণে বের হয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) বিএনসিসি প্লাটুনের এগারো চৌকস ক্যাডেট। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় এই বিষয়ে এক কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন শেষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজসহ চট্টগ্রামের বিভিন্ন উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থানের উদ্দেশ্যে সাইকেল যাত্রা শুরু করে তারা। আগামি ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ১০ দিন চট্টগ্রামে অবস্থান করে জনসচেতনতা্মূলক এই প্রচারণা চালাবে তারা।

দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ ও দেশের ঐতিহাসিক স্থানসমূহে সাইকেলে করে পাড়ি জমাবে তারা। বিলি করবে বৈশ্বিক উষ্ণতা হ্রাস ও পরিবেশের প্রতি দায়বদ্ধতা বিষয়ক প্রচারপত্র।

বিএনসিসি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্লাটুনের সিইউও নাজমুল হকের নেতৃত্বে এই চৌকস দলে আছে ফেরদৌস, মোমেন, রবিউল, তানভীর, মনির, মাহবুব, ইমরান, আমান, সাইফুল এবং শাহাদাত।

বিএনসিসি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্লাটুনের পিইউও শামিমুল ইসলামের সভাপতিত্বে এই আয়োজনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ডক্টর মোহাম্মদ আলী আশরাফ।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান মজুমদার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ডক্টর তৌহিদুল ইসলাম, বিএনসিসি ময়নামতি রেজিমেন্টের অ্যাডজুটেন্ট মেজর মোজাম্মেল হক, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোহাম্মদ আইনুল হক, লোকপ্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোসাম্মৎ শামসুন্নাহার, অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোসাদ্দেক হোসেন, আইসিটি বিভাগের প্রভাষক খোন্দকার ফিদা হাসান, প্রভাষক কাজী কামাল উদ্দিন, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মাসুম প্রমুখ।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ডক্টর মোহাম্মদ আলী আশরাফ বলেন, বৈশ্বিক উষ্ণতার ফলে আমরা আজ মারাত্মক হুমকির সম্মুখীন। এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির প্রয়াসে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের চৌকস বিএনসিসি ক্যাডারদের এই সাইকেল ভ্রমণ দেশব্যাপী গণসচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তিকেও উজ্জ্বল করবে।

উল্লেখ্য, সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির ফলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ভয়াবহ বিপর্যয়ের সম্মুখীন হবে বাংলাদেশের প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার বর্গ কিলোমিটার এলাকা। পৃথিবীর তাপমাত্রা আর মাত্র ১ ডিগ্রী সেলসিয়াস বৃদ্ধি পেলেই সমুদ্রগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের ১৯ শতাংশ ভূমি। সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা মাত্র ১ মিটার বাড়লে তলিয়ে যাবে বিশ্বের শেষ্ঠ উপকূলীয় বন সুন্দরবনের ৭০ ভাগ। এছাড়াও নদ-নদীর প্রবাহ হ্রাস, লবণাক্ততা বৃদ্ধি, আকস্মিক বন্যা, নদী ভাঙ্গন, খরা, সামুদ্রিক ঝড়-জলোচ্ছ্বাসসহ বহুমুখী ক্ষতির কবলে পড়বে প্রিয় দেশ বাংলাদেশ।