চট্টগ্রামে সংঘর্ষ-ভাংচুরের মধ্য দিয়ে জামায়াত শিবিরের হরতাল চলছে

  • Emad Buppy
  • December 15, 2013
  • Comments Off on চট্টগ্রামে সংঘর্ষ-ভাংচুরের মধ্য দিয়ে জামায়াত শিবিরের হরতাল চলছে
Chittagong Hartal

laxmipur Hortalচট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্নস্থানে ককটেল বিস্ফোরণ, যানবাহন ভাংচুর ও শিবির কর্মীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার মধ্য দিয়ে জামায়াত-শিবিরের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালিত হচ্ছে।

আজ জামায়াতের ডাকা হরতালে সকাল থেকে নগরীর পাচঁলাইশ থানার বেবি সুপার মার্কেট, খুলশী থানার ওয়ারলেস মোড়, মেহেদীবাগ ও গোল পাহাড় মোড়সহ বেশ কয়েকটি স্থানে ককটেল বিস্ফোরণ ও যানবাহনে ভাংচুর করেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আজ সকাল ৯ টার দিকে পাচঁলাইশ থানার বেবি সুপার মার্কেট এলাকায় একটি যানবাহনে যাত্রী সেজে জামায়াত শিবিরের কর্মীরা আগুন ধরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় যাত্রী ও চালকের চিৎকারে ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হলে শিবির কর্মীরা পালিয়ে যায়।

এদিকে, নগরীর খুলশী থানার ওয়ারলেস মোড় ও চকবাজার থানার মেহেদীবাগ মোড় ও গোল পাহাড় মোড় এলাকায় একটি ঝটিকা মিছিল থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল ছোড়ে  শিবিরকর্মীরা। তবে এসব ঘটনায় এখনও পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারে নি।

নগরীর বিভিন্নস্থানে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা কাদের মোল্লার পক্ষে ও সরকার বিরোধী নানান শ্লোগান দেয়।

সকাল থেকে নগরীতে যানচলাচল স্বাভাবিক হলেও সংখ্যা ছিল অনেক কম। তাই যাত্রীদের বাড়তি বাড়াসহ পোহাতে হয়েছে নানান ঝামেলায়। এদিকে চট্টগ্রাম থেকে দূরপাল্লার কোনো বাস ছেড়ে যেতে দেখা যায় নি।

চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজ থেকে পণ্য উঠা-নামা করলেও যানচলাচল না করায় দূর পাল্লার কোনো ট্রাক ছেড়ে যায় নি। এদিকে বিমান চলাচল স্বাভাবিক ছিল বলে জানা গেছে।

চট্টগ্রাম পুলিশের অতিরিক্ত উপ- কমিশনার মুনজুর মোর্শেদ বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরীর কোথাও বড় ধরণের কোনো নাশকতার খরব পাওয়া যায় নি। নগরীতে অতিরিক্ত দুই হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে এবং বিজিবি ফোর্স রিজার্ভ রয়েছে। প্রয়োজন হলে তাদেরও মোতায়েন করা হবে। মহাসড়কে পুলিশের পাশাপাশি বিজিবিও মোতায়েন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, জামায়াত নেতা যুদ্ধাপরাধী ও একাত্তরের কসাই কাদের খ্যাত কাদের মোল্লার মৃত্যু কার্যকর করার প্রতিবাদে সারাদেশে রোববার সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেয় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলাম।