ভারতের নির্বাচন নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন নই: যোগাযোগমন্ত্রী

  • Emad Buppy
  • May 16, 2014
  • Comments Off on ভারতের নির্বাচন নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন নই: যোগাযোগমন্ত্রী
obaydul kader
ফাইল ছবি: যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের
ফাইল ছবি: যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

ভারতে যে নির্বাচন হয়েছে সেটি গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতেই হয়েছে। এ নির্বাচন নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন নই। কারণ এটা তাদের আভ্যন্তরীণ ব্যাপার। তারা তাদের পছন্দের প্রার্থীকেই বিজয়ী করেছে। এ নির্বাচন বাংলাদেশে কোনো প্রভাব ফেলবে না বলে জানিয়েছেন যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) অডিটরিয়ামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের যে বন্ধুসুলভ সম্পর্ক তাতে সে দেশের নির্বাচনের কোনো প্রভাব ফেলবে না এদেশে। তাদের সঙ্গে আমাদের বৈদেশিক সম্পর্ক সব সময়ই ইতিবাচক ছিল, এখনো আছে এবং ভবিষ্যতেও তা অটুট থাকবে।

তিনি বলেন, বিএনপি যদিও আজ সংসদে নেই তবুও তারা দেশের বড় এবং প্রধান বিরোধী দল। তারা সবচেয়ে বড় ভুল করেছে গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে না এসে। যার খেসারত তাদেরকে এখন দিতে হচ্ছে। তারা সব সময় বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামের হুমকি দিয়ে আওয়ামী লীগকে দমিয়ে রাখতে চায়।

মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন কার্যক্রমে এগিয়ে যাচ্ছে। অনেকে বলেছিল ৫ জানুয়ারির নির্বাচন নিয়ে সরকার যা করছে সেটি ঠিক নয়। তারা ৩ মাসও ক্ষমতায় থাকতে পারবে না। আমাদের নিজেদের দলের অনেক নেতা-কর্মীকেও সে সময় ফোনে পাওয়া যায়নি। কিন্তু আওয়ামী লীগ ইতোমধ্যে ৫ মাস অতিক্রম করে আগামি এক বছরের জন্য বাজেট প্রণয়ন করতে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, বিএনপি বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আন্দোলন করতে চায়। সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ ইস্যু নিয়ে তারা তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার হুমকি দিচ্ছেন। তারা এ ঘটনায় পুরো র‌্যাব বাহিনীকে খারাপ বলছেন। আমাদের মাঝে খারাপ থাকতে পারে। তাদের দলেও খারাপ থাকতে পারে। র‌্যাবের মাঝেও কিছু সংখ্যক খারাপ থাকতে পারে। এর জন্য পুরো র‌্যাব বাহিনীকে খারাপ বলা যায় না।

আলোচনা সভায় ছাত্রলীগের সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগের সভাপতিত্বে ‘শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ৩৩ বছর: পেছনে ফিরে দেখা’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদ। এছাড়া অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য এ কে এম এনামুল হক শামীম প্রমুখ।

এএইচ/ এ এস