পতনেই সপ্তাহ শেষ

dse_dsbi_index
dse_dsbi_index
ডিএসই প্রধান সূচক

পুঁজিবাজারে সূচকের পতনের মধ্য দিয়ে এই সপ্তাহের লেনদেন শুরু হয়েছিল। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার পতনের মধ্য দিয়েই লেনদেন শেষ হয়েছে। সপ্তাহের প্রথম দিন রোববার আগের কার্য দিবসের চেয়ে ডিএসই প্রধান সূচক কমেছিল ৫৭ পয়েন্ট। আর শেষ দিনে আগের দিনের চেয়ে প্রধান সূচক কমেছে ৪০ পয়েন্ট। পুরো সপ্তাহে ১৩৯ পয়েন্ট কমেছে প্রধান সূচক।

বাজার বিশ্লেষকদের মতে, পুঁজিবাজারে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী কমে গেছে। বেড়েছে প্রতিদিনের বিনিয়োগকারী। ফলে দীর্ঘ মেয়াদী বিনিয়োগ না থাকায় সূচকের অব্যাহতভাবে পতন ঘটছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত রোববার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান বা ডিএসইএক্স সূচকের অবস্থান ছিল ৪ হাজার ৪৯৮ পয়েন্টে। বৃহস্পতিবার এই সূচকের অবস্থান দাঁড়ায় ৪ হাজার ৪১৬ পয়েন্টে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) এই দিন প্রধান সূচক বা ডিএসইএক্স সূচক কমেছে ৪০ পয়েন্ট বা দশমিক ৯০ শতাংশ। ডিএসইএস সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৯৮৪ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক কমেছে ১৮ পয়েন্ট। এই সূচকের অবস্থান দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৬০৪ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণও কমেছে এই দিন। লেনদেন হয়েছে ৩০৫ কোটি ৩৪ লাখ টাকার। মোট লেনদেনে অংশ নিয়েছে ২৮২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭৬টির কমেছে ১৭৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির।

টাকার পরিমাণে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দম কোম্পানি হচ্ছে- স্কয়ারফার্মা, গ্রামীণফোন, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড, মেঘনা পেট্রোলিয়াম, হা-ওয়েল টেক্সটাইল, মতিন স্পিনিং, পদ্মা অয়েল, ইস্টার্ন হাউজিং লিমিটেড, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ এবং হাইডেরবার্গ সিমেন্ট।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সিএসই সার্বিক সূচক ৯৮ পয়েন্ট কমেছে। এই সূচকের অবস্থান দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৬৫৭ পয়েন্টে। মোট লেনদেন হয়েছে ২১১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৪৪টির কমেছে ১৪১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির।

অর্থসূচক/এমআরবি/