বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক বাড়াতে ভারতের উদ্যোগ

  • sahin rahman
  • May 12, 2014
  • Comments Off on বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক বাড়াতে ভারতের উদ্যোগ
image
image
বাংলাদেশ ও ভারতের পতাকা- ফাইল ছবি

বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়াতে উদ্যোগ নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। এ লক্ষ্যে  শিলিগুড়িতে শুরু হয়েছে মাসব্যাপী বাণিজ্য মেলা। এতে অংশ নিচ্ছেন বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরাও। বসেছে  কয়েক ডজন বাংলাদেশি স্টল। মেলায় পাওয়া যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী ঢাকাই জামদানি, ঢাকাই সিল্ক, কোটা ও টাঙ্গাইলের মসলিন কাপড়, পাঞ্জাবি-ফতুয়াসহ অন্যান্য বস্ত্রসামগ্রী। খবর বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের।

এই মেলার আয়োজক শুখেন্দু পল জানান, মেলায় ওঠেছে বাংলাদেশ ও ভারতীয় হস্তশিল্প। পুর্ব বাংলার সহিংস পরবর্তী ইন্দো-বাংলার বাণিজ্য সম্পর্ক সম্প্রসারিত করতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

মেলায় ভারতীয় একজন ক্রেতা লক্ষী কুণ্ডু জানান, শিলিগুড়িতে বাণিজ্য মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে- শুনে আমি খুব আশ্চার্য হয়েছে। কয়েকদিন আগে আমি ভাবছিলাম কিছু জিনিস কেনার জন্য বাংলাদেশে যাবো। কিন্তু যেহেতু ওই সব জিনিস এখন মেলাতেই পাওয়া যাচ্ছে তাই প্রয়োজনী জিনিস এখান থেকেই কিনেছি। প্রতিবছর এমন মেলা অনুষ্ঠিত হলে ভারতের ক্রেতারা সহজেই বাংলাদেশি পণ্য এখান থেকে কিনতে পারবেন বলে উল্লেখ করেন তিনি।

শুখেন্দু পল বলেন, ১৯৭১ সালে বর্বর পশ্চিম পাকিস্তানিদের হাত থেকে বাংলাদেশকে স্বাধীন করতে ভারত এগিয়ে এসেছিল। এরপর এ দুদেশের মধ্যে বাণিজ্যসম্পর্ক অগ্রসর হয়েছিল। কিন্ত গত এক দুই বছর ধরে বাংলাদেশে যে পরিমাণ হরতাল ধর্মঘট ও রাজনৈতিক সহিংসতা চলেছে। এর প্রভাব পড়েছে দুই দেশের আন্তবাণিজ্যর ওপর। আর এ দিকটা গুরুত্ব দিয়েই শিলিগুড়িতে শুরু করা হয়েছে এই বানিজ্য মেলা।

অর্থবিশ্লেষকরা বলছেন, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার ধরা হয়েছে ৬ দশমিক ৪ শতাংশ। কিন্তু গত বছরের শেষের দিকে এবং চলতি বছরের প্রথম দিকে যেভারে রাজনৈতিক সহিংসতা বিরাজ করছে তাতে এই প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশের নিচে চলে আসবে বলে আশংকা করা হচ্ছে। তবে ভারতসহ বিভিন্ন দেশের মধ্যে আন্তবাণিজ্য বাড়ানো গেলে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হবে বলে মনে করেন তারা।

এস রহমান/