বুধবার থেকে মূল মার্কেটে ওয়াটা ক্যামিকেলের লেনদেন

wata chemical, ওয়াটা কেমিক্যাল
wata chemical, ওয়াটা কেমিক্যাল
মূল মার্কেটে ফিরছে ওয়াটা কেমিক্যালস

আগামি বুধবার থেকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মূল মার্কেটে ওয়াটা ক্যামিক্যালস লিমিটেডের শেয়ার লেনদেন হবে। আর এর মধ্য দিয়ে প্রায় সাড়ে তিন বছর ওভার দ্যা কাউন্টার (ওটিসি) নামের বিকল্প মার্কেটে থাকার পর মূল মার্কেটে ফিরবে কোম্পানিটি। প্রথম দিন থেকেই শেয়ারটির লেনদেনে সার্কিট ব্রেকার বা মূল্য সীমা থাকবে।ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত বৃহস্পতিবার ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ কোম্পানিটিকে মূল মার্কেটে ফিরিয়ে আনার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়।

বিভিন্ন কারণে ২০১০ সালে কোম্পানিটিকে ওটিসিতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। মূল মার্কেটে ফেরার সব শর্ত পূরণ হওয়ায় গত বছর কোম্পানিটি মূল মার্কেটে ফেরার আবেদন করে। এর প্রেক্ষিতে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কোম্পানিটিকে মূলবাজারে লেনদেনের সুযোগ দেওয়ার আবেদন অনুমোদন করে। কিন্তু ডিএসই নানা অজুহাত দেখিয়ে প্রক্রিয়াটিকে বিলম্বিত করে। অবশেষে নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদনের প্রায় এক বছর পর কোম্পানিটিকে মূল বাজারে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয় ডিএসই।

জানা গেছে, গত বছরের ৯ জুলাই অনুষ্ঠিত বিএসইসি’র ৪৮৫তম কমিশন সভায় ওয়াটা ক্যামিক্যাল লিমিটেডকে মূল মার্কেটে ফিরিয়ে আনারবিষয়ে কমিশনের সিদ্ধান্ত হয়। এর আলোকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকে (ডিএসই) বিষয়টি জানানো হয়। কারণ হিসেবে কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়, কোম্পানিটি নিয়মিত এজিএম, বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ প্রদানসহ অন্যান্য বিষয় পরিপালন করছে। ফলে কোম্পানিটির মূল মার্কেটে তালিকাভুক্তির ক্ষেত্রে আর বাধা নেই।

গত ২০০৯ সালের ৬ সেপ্টেম্বর ওটিসি মার্কেট গঠনের পর বিভিন্ন কারণে অনেকগুলো কোম্পানিকে সেখানে পাঠানো হয়। প্রতিবছর এজিএম না করা, ডিভিডেন্ড ঘোষণা না করা, আর্থিক প্রতিবেদন সময় মত বা কখনোই জমা না দেওয়া, কোম্পানির উৎপাদন বন্ধ হয়ে যাওয়া অথবা কোম্পানির শেয়ার ডিমেট না হওয়া ইত্যাদি কারণে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কোম্পানিকে ওটিসিতে পাঠিয়ে দেয়া হয়। তবে এসব বাধ্যতামূলক নিয়ম পরিপালনের মাধ্যমে মূল মার্কেটে ফেরার অনুমোদন পেয়েছে ওয়াটা ক্যামিকেল।