‘মানুষ স্বাভাবিক মৃত্যু চায়’

স্বাভাবিক মৃত্যু

স্বাভাবিক মৃত্যু‘দেশের সাধারণ মানুষ তাদের স্বাভাবিক মৃত্যু চায়। তাই স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি আহবান জানাই’।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘গুম, খুন, অপহরণ ও হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধনে বক্তারা এ আহবান জানান।

জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন এ মানববন্ধনের আয়োজন করেন।

মানববন্ধনে শ্রমিক নেতারা বলেন, সারাদেশে আশংকাজনক হারে গুম, খুন ও অপহরণ হচ্ছে। দিন দিন এই মাত্রা বেড়েই চলছে। আইন-শৃংখলা বাহিনী অপহরণের নামে মুক্তিপণের জন্য ব্যবসায়ী, রাজনীতিবীদ ও আইনজীবীদের টার্গেট করে অপহরণ করছে। কখনও কখনও মুক্তিপণ না দিলে তাদের হত্যা করছে। এ সুযোগে সারাদেশে সন্ত্রাসী গোষ্ঠি স্বার্থ হাসিলের জন্য সাধারণ মানুষকেও অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করছে।

তারা বলেন, আবার কাউকে কাউকে হত্যা, গুম করছে। ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদসহ উচ্চ পর্যায়ের মানুষ নিরাপত্তা পেলেও সাধারণ মানুষ নিরাপত্তাহীনতা ও শঙ্কায় রয়েছেন। গুম, খুন আর অপহরণের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় সাধারণ মানুষের প্রশ্ন স্বাভাবিকভাবে মৃত্যুবরণ করতে পারবে কিনা।

খুন, গুমের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় অর্থনীতিতে এর প্রভাব পড়ছে উল্লেখ করে তারা বলেন, দেশের অর্থনীতিকে টিকিয়ে রাখতে এর সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। পাশাপাশি স্বাভাবিক মুত্যুসহ জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

মানববন্ধনে জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি বাহারানে সুলতান বাহারের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনেরসহ সাধারণ সম্পাদক মো. মোস্তফা, হারুনুর রশিদ, শামসুল আলম, জহির মোড়ল, আমজাদ জামাল শিকদার প্রমুখ।

জেইউ/সাকি