সোমবার পেনিনসুলার রিফান্ড বিতরণ শুরু

Hotel_Peninsula

Hotel_Peninsulaহোটেল পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেডের এ্যালটমেন্ট লেটার বা বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ শুরু হবে ৫ মে  সোমবার। চলবে ৮ মে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। কোম্পানি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ব্যাংক রশিদের বিপরীতে বরাদ্দপত্র এবং রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে।

উল্লেখ, গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) লটারি অনুষ্ঠিত হয়। লটরিতে যারা কৃতকার্য হয়েছেন তারা শেয়ারের বরাদ্দপত্র বা অ্যালটমেন্ট লেটার পাবেন। আর অকৃকার্য আবেদনকারীরা জমা দেওয়া অর্থ ফেরত পাবেন।

বরাদ্দপত্র এবং রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থা, ঝিলপাড়, আরামবাগ; মতিঝিলের এজিবি কলোনি কমিউনিটি সেন্টার এবং নয়াপল্টনের পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে। যেসব বিনিয়োগকারীর অনলাইন ব্যাংক হিসাব রয়েছে তাদের রিফান্ড স্বয়ংক্রিয়ভাবে তার হিসাবে জমা হয়ে যাবে।

৫ মে: এজিবি কলোনিতে  বিতরণ করা হবে আইএফসি  ব্যাংক লিমিটেড এবং ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের অনুমোদিত সকল শাখার বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট।

৬ মে: ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায় বিতরণ করা হবে ন্যাশনাল ব্যাংকের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট। এদিন ন্যাশনাল ব্যাংকের নিচের শাখাগুলোর রিফান্ড বিতরণ করা হবে। শাখাগুলো হচ্ছে, বাবুবাজার শাখা, বান্দুরা শাখা, ধানমন্ডি শাখা, গুলশান শাখা, উত্তরা শাখা, বনানী শাখা, বংশাল শাখা ও আগারগাঁও শাখা, দিলকুশা শাখা, ইসলামপুর শাখা, যাত্রাবাড়ী শাখা, কারওয়ান বাজার শাখা, সাভার শাখা, লেকসার্কাস শাখা, মালিবাগ শাখা, মিরপুর শাখা, মহাখালী শাখা, মোহাম্মদপুর শাখা, মতিঝিল শাখা, নিউ ইস্কাটন শাখা, নর্থব্রক শাখা, মতিঝিল শাখা, উত্তরা শাখা, রাইফেলস স্কয়ার শাখা, প্রগতি স্মরণী শাখা, রোকেয়া স্মরণী শাখা এবং জেড এইচ সিকদার এমসি শাখা।

এদিন এজিবি কলোনি কমিউনিটি সেন্টারে বিতরণ করা হবে ইস্টার্ণ ব্যাংক ও শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট।

এছাড়া পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে বিতরণ করা হবে  ওয়ান ব্যাংক ব্যাংকের  অনুমোদিত নিচের শাখার বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট।

শাখাগুলো হচ্ছে, বনশ্রী, বনানী, বংশাল, বাসাবো, মিরপুর, ধানমণ্ডি, এলিফ্যান্ড রোড, গণকবাড়ী, গুলশান, কাকরাইল, জগন্নাথপুর, যাত্রাবাড়ী, জয়পাড়া, কারওয়ান বাজার, মগবাজার,মতিঝিল প্রিন্সিপাল শাখা, প্রগতি স্বরণী এবং নওয়াবগঞ্জ শাখা।

৭ মে: ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের ঢাকার বাইরে অনুমোদিত সকল শাখার রিফান্ড এবং বরাদ্দপত্র বিতরণ করা হবে ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায়। এছাড়া একই স্থানে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের অনুমোদিত সকল শাখার রিফান্ড এবং বরাদ্দপত্র বিতরণ করা হবে।

আর এজিবি কলোনিতে  বিতরণ করা ট্রাস্ট ব্যাংক এবং ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) সকল শাখার রিফান্ড এবং বরাদ্দপত্র।

এদিন পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে বিতরণ করা হবে ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের রিং রোড শাখা, শাহাজাদপুর এসএমই শাখা, উত্তরা শাখা এবং ঢাকার বাইরে অনুমোদিত শাখা সমূহের রিফান্ড ওয়ারেন্ট। একই স্থানে মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের নিচের শাখাগুলোর রিফান্ড বিতরণ করা হবে।

শাখাগুলো হচ্ছে, বাবুবাজার, বনানী, বসুন্ধরা, বারিধারা, চন্দ্রা, চক মোঘলটুলী, ধোলাইখাল, দিলকুশা, ধানমন্ডি, এলিফ্যান্ড রোড, ফুলবাড়িয়া এবং গুলশান শাখা।

৮ মে:  এদিন কমার্শিয়াল ব্যাংক অব সিলনের অনুমোদিত সকল শাখা সমূহের রিফান্ড ওয়ারেন্ট ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায় বিতরণ করা হবে। একই স্থানে অনিবসী বাংলাদেশী (এনআরবি) সকল মিউচ্যুয়াল ফান্ড এ পোর্টফলিও হিসাব সমূহের রিফান্ড বিতরণ করা হবে।

এজিবি কলোনিতে বিতরণ করা হবে সিটি ব্যাংক লিমিটেড এবং ব্রাক ব্যাংক লিমিটেডের  অনুমোদিত সকল শাখার রিফান্ড ওয়ারেন্ট।

পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের অনুমোদিত নিচের শাখার রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে। শাখাগুলো হচ্ছে, মোহাম্মদপুর, এমটিবি কর্পোরেট সেন্টার, প্রিন্সিপাল, পান্থপথ, প্রগতি স্বরণী, শনির আখড়া, পল্লবী, উত্তরা, সাভার, শ্রী নগর এবং ঢাকার বাইরে অনুমোদিত শাখা ।

জানা যায়, প্রত্যেক বিনিয়োগকারী তাদের নিজ নিজ ব্যাংক একাউন্ট থেকে তাদের রিফান্ড ওয়ারেন্ট সংগ্রহ করতে পারবে। যেসব বিনিয়োগকারীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অনলাইন সুবিধা চালু নেই তাদের উপোরক্ত ঠিকানা থেকে রিফান্ড সংগ্রহ করতে হবে।

তবে যেসব বিনিয়োগকারী এবি ব্যাংক লিমিটেড, আল-আরফা ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, আল –ফালাহ ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া  লিমিটেড, ব্রাক ব্যাংক লিমিটেড,কমার্শিয়াল ব্যাংক অব সিলন পিএলসি, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, ইস্টার্ণ ব্যাংক লিমিটেড,এক্সিম ব্যাংক লিমিটেড, ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংক লিমিটেড, যমুনা ব্যাংক লিমিটেড, মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড, মিউচুয়্যাল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড, ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান, এনসিসি ব্যাংক ব্যাংক লিমিটেড, ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড, প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড, শাহাজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, স্ট্যান্ডার্ড চার্টাড ব্যাংক, স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া এবং দি সিটি ব্যাংক ট্রাস্ট ব্যাংক  যাদের অ্যাকাউন্ট আছে তাদের নিজ নিজ অ্যাকাউন্টে রিফান্ড জমা হয়ে যাবে। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীরা এ সুযোগ পাবে না।

এছাড়া যারা নির্ধারিত তারিখের মধ্যে  যাদের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট ব্যাংকে জমা হবে না, তাদের নিজ ঠিকানায় কুরিয়ার সার্ভিসে পাঠানো হবে।

এসএ/