বাংলাদেশে এপার্টমেন্ট ও ফ্লাইওভার করবে মালয়েশিয়া

এপার্টমেন্ট

এপার্টমেন্টবাংলাদেশে ২২ হাজার এপার্টমেন্ট ও ১৩ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি ফ্লাইওভার করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে মালয়েশিয়া। মঙ্গলবার গৃহায়ন ও গনপূর্ত মন্ত্রনালয়ে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়া সরকারের সঙ্গে এ বিষয়ে ৩ টি সমঝোতা স্মারক সাক্ষরিত হয়।

এসব এপার্টমেন্টের মধ্যে উত্তরায় ১২ হাজার এবং কামরাঙ্গিরচরে ১০ হাজার হবে বলে সাংবাদিকদের জানান গৃহায়ন ও গনপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন।
মন্ত্রী আরও বলেন, শান্তিনগর থেকে ঝিলমিল আবাসিক প্রকল্প পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি ফ্লাইওভার তৈরি করতেও উভয় পক্ষ একমত হয়েছে।
এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে পূর্ণাঙ্গ আর্থিক প্রস্তাব পেলে তা যাচাই বাছাই করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

চুক্তি হলে কতোদিনে এসব প্রকল্প শেষ করা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে চুক্তির ৩০ মাসের মধ্যেই তারা উত্তরা এপার্টমেন্টের কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন’। তবে কামরাঙ্গিরচরের এপার্টমেন্ট ও ফ্লাইওভার প্রকল্পের ব্যাপারে তেমন কোনও সম্ভাব্য সময় জানাননি তিনি।
মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আশা করছি মালয়েশিয়া খুব দ্রুত এসব প্রকল্পে তাদের পূর্ণাঙ্গ একটি প্রস্তাব দিবে এবং আমরাও অল্প সময়ের মধ্যে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারবো’।

ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন ও মালয়েশিয়া সরকারের বিশেষ দূত উতামা এস সামি ভেলু এই ৩ টি সমঝোতা স্মারকে সই করেন।
এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত সচিব গোলাম রাব্বানী, রাজউক চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন ভূইয়াসহ মন্ত্রনালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এমআরএস/সাকি