শিশুটির মুক্তিপন বাবদ ১০ লাখ টাকা দাবি করেছিল

Faridpur

অপহরণঢাকার কদমতলী থানার নতুন জুরাইন আলমবাগ এলাকা থেকে অপহৃত শিশু মিজানকে ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ভুলবাড়িয়া গ্রাম থেকে উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মুক্তিপন বাবদ ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করা হয়েছিল।

জানা গেছে, গত ১৪ এপ্রিল ঢাকার বাসা থেকে নিখোঁজ হয় ওমান প্রবাসী শাহীন শাহীন মোল্লার চার বছরের শিশুপুত্র মিজান। ১৪ এপ্রিল পরিবারের পক্ষ থেকে ঢাকার কদমতলী থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেন মিজানের নানী সৈয়দুন্নেছা। এরপর থেকে বিভিন্ন মোবাইল নম্বর থেকে শিশুটির মুক্তিপন বাবদ ১০ লাখ টাকা দাবি করা হয়। অন্যথায় শিশুটিকে হত্যা করার হুমকি দেওয়া হয়। একপর্যায়ে শিশুটির ব্যবহৃত কাপড়-চোপড় ফেরত দেয় অপহরণকারীরা। উদ্দেশ্য শিশুটি জীবিত আছে নিশ্চিত করা। মুক্তিপনের দাবিতে বারবার চাপ প্রয়োগ করে আসছিল অপহরণকারীরা। কিন্ত বিধি এর আগেই ফরিদপুরের বোয়ালমারী থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উদ্ধার করে শিশুটিকে। সেই সাথে পুলিশ শফিকুল ইসলাম নামের অপহরণকারী চক্রের এক সদস্যকেও আটক করে। আটক ব্যক্তি তার বাড়ি নিলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জের দুলাপাড়া গ্রামে এবং বাবার নাম মোবারক আলী বলে জানিয়েছে।

এমআইটি/সাকি