রাজশাহীতে চিকিৎসকের অবহেলায় রোগীর মৃত্যু

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ

রাজশাহী মেডিকেল কলেজরাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসকদের অবহেলায় শহিদুল ইসলাম (৩৫) নামে এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে হাসপাতালের ২৬ নং ওয়ার্ডে ওই রোগী মারা যান।

রোগীর স্বজনদের অভিযোগ, শ্বাসকষ্ট ও বুকের ব্যাথা অনুভব করলে শহিদুল ইসলামকে রামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক শহিদুল ইসলামকে হৃদরোগ বিভাগ ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে পাঠিয়ে দেন।

রোগীর জরুরি অক্সিজেনের প্রয়োজন দেখা দিলে রোগীর লোকজন অক্সিজেনের জন্য চিকিৎসককে না পেয়ে ওয়ার্ডে কর্তব্যরত সেবিকাদের বলেন। কিন্তু ১০ মিনিট পার হয়ে গেলেও রোগীকে অক্সিজেন দেওয়া হয়নি। প্রায় ১৩ মিনিট ওই অবস্থায় থেকে শহিদুল ইসলাম মারা যান। রোগীর স্বজনরা অভিযোগ করেন, সময় মতো অক্সিজেন ও চিকিৎসা পেলে শহিদুল ইসলাম বেঁচে যেতেন।

পরে এ ঘটনায় রোগীর আত্মীয়রা ক্ষিপ্ত হয়ে ওয়ার্ডে কর্মরত চিকিৎসক ও সেবিকাদের গালিগালাজ করলে উত্তেজনা বাড়তে থাকে। পরে পুলিশ গিয়ে রোগীর স্বজনদের ওয়ার্ড থেকে বের করে দিয়ে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসে।

হাসপাতাল বক্স পুলিশের ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান জানান, রোগীর আত্মীয়দের বুঝিয়ে শান্ত করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিত শান্ত আছে।

এমআই/সাকি