বারডেমের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

law

court-ctgরাজধানীর বারডেম হাসপাতালে রোগীর মৃত্যু ও  চিকিৎসকদের ওপর হামলার ঘটনা বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। সেই সাথে আদালত আগামি ২৮ এপ্রিলের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

রোববার বিকলে চিকিৎসক ও রোগীর স্বজনদের করা পাল্টাপাল্টি মামলায় শুনানি শেষে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান এ আদেশ দেন।

রোববার সকালে বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসকদের ওপর মারধরের ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় মামলায় সাবেক শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ানের ব্যক্তিগত সহকারী ইসহাক হোসেন বাবু, ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেনসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে মামলা হয়েছে। এছড়াও মামলায় ২০ থেকে ২৫ জন অজ্ঞাতনামা ব্যাক্তিদেরকে আসামি করা হয়েছে।

বারডেমের জ্যেষ্ঠ নিরাপত্তা সুপার মো. মানিক মোল্লা বাদী হয়ে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে এ মামলা করেন।

এরপরে  ‘অবহেলায় রোগীর মৃত্যুর’ অভিযোগ এনে হাসপাতালের পাঁচ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করেন  মৃত সিরাজুল ইসলামের (৫৭) মেয়ে ফারহানা নাসরিন।

এমামলায় আসামিরা হচ্ছেন- ডা. আজাদ, ডা. শামীমা আক্তার, ডা. ফিরোজ আমিন, ডা. কল্যাণ দেবনাথ ও ডা. আনোয়ার হোসেন।

গত ১৩ এপ্রিল রাতে সিরাজুল ইসলাম (৫৭) নামের এক রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে কর্তব্যরত তিনজন চিকিত্সককে মারধর ও লাঞ্ছিত করে রোগীর স্বজনদের ৪০-৫০ জনের একটি দল। এতে গুরুতর আহত হন ডা. আনোয়ার হোসেন, ডা. কল্যাণ দেবনাথ ও শামীমা আক্তার ।

চিকিৎসকদের ঘটনার প্রতিবাদে কর্মবিরতীতে যান চিকিৎসকেরা ।তাদের আন্দোলনের মুখে পুলিশ কর্মকর্তা মাসুদকে তার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।