খুলনায় বোরোর বাম্পার ফলন

khulna

khulna-খুলনায় এবার বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। যা দেখে কৃষকের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বোরো আবাদ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে।

খুলনা জেলার ৯ উপজেলাসহ মেট্রো এলাকায় বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ৪৮ হাজার ৬৫০ হেক্টর জমি থাকলেও অর্জিত হয়েছে ৫০ হাজার ১শ হেক্টর। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১ হাজার ৪৫০ হেক্টর বেশি। ইতোমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন জমিতে বোরো ধান কাটা শুরু হয়েছে।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, খুলনার ৯ উপজেলাসহ মেট্রো এলাকায় বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪৮ হাজার ৬৫০ হেক্টর। কিন্তু অর্জিত হয়েছে ৫০ হাজার ১শ হেক্টর। এরমধ্যে জেলার মেট্রো এলাকায় হাইব্রিড, উচ্চ ফলনশীল (উফশী) ও স্থানীয় জাতের বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ হাজার ৪৫০ হেক্টর, অর্জিত হয়েছে ১ হাজার ৪৮৫ হেক্টর, রূপসায় ৫ হাজার ৬৫০ হেক্টর লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে চাষাবাদ হয়েছে ৫ হাজার ৭৫০ হেক্টর, ডুমুরিয়ায় লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২০ হাজার হেক্টর, অর্জিত হয়েছে ২০ হাজার ৫০ হেক্টর, বটিয়াঘাটায় ৩ হাজার ৫২৭ হেক্টরে অর্জিত হয়েছে ৩ হাজার ৫শ হেক্টর, পাইকগাছায় লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ হাজার ৯১৪ হেক্টর, অর্জিত হয়েছে ২ হাজার ২শ হেক্টর, দিঘলিয়ায় ৪ হাজার হেক্টরের বিপরীতে অর্জিত হয়েছে ৪ হাজার ১শ হেক্টর, ফুলতলায় লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪ হাজার ৬শ হেক্টর, অর্জিত হয়েছে ৪ হাজার ৪শ হেক্টর, তেরখাদায় ৬ হাজার ২০৯ হেক্টরের বিপরীতে অর্জিত হয়েছে ৬ হাজার ৩শ হেক্টর, দাকোপে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১শ হেক্টর, অর্জিত হয় ৬৫ হেক্টর, কয়রায় লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১২শ হেক্টর, অর্জিত হয়েছে ২ হাজার ২৫০ হেক্টর।

রূপসার বাগমারা এলাকার কৃষক মো. খোরশেদ আলম জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর বোরো আবাদের ফলন ভালো হয়েছে। তিনি জানান, অনেক এলাকায় আগাম ফসল কাটা শুরু হয়েছে।

কয়রার প্রান্তিক চাষি মো. মুসা বলেন, বোরোর বাম্পার ফলন হওয়ায় মন ভালো। আশা করছি দাম ভালো পাবো। তা দিয়ে দেনা শোধ করতে পারবো।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খুলনার উপ-পরিচালক কাজী আনিসুজ্জমান জানান, এ বছর খুলনায় বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রার ছাড়িয়ে গেছে। ফলনও ভালো হয়েছে।

কেএফ