সিদ্ধান্ত গ্রহণের আইনী অধিকার পাচ্ছেন পাঞ্জাবের নারীরা

  • sahin rahman
  • March 9, 2014
  • Comments Off on সিদ্ধান্ত গ্রহণের আইনী অধিকার পাচ্ছেন পাঞ্জাবের নারীরা

women bill imageচলতি বছর আন্তর্জাতিক নারী দিবসে নারীর ক্ষমতায়নের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেল পাকিস্তান। দেশটির একটি প্রদেশ সরকার ৮ মার্চ একটি বিশেষ বিল পাস করেছে। নীতি-নির্ধারণসহ নানান জায়গায় নারীর প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে এই আইনটি পাস করা হয়েছে বলে দেশটির সংবাদমাধ্যম ডন এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শনিবার দেশটির পাঞ্জাব প্রদেশের আইন সভায় বিশেষ এই বিলটি পাস হয়।

পাঞ্জাব ফেয়ার প্রতিনিধিত্ব নারী বিল ২০১৪ নামের ওই বিলটি পাসের ফলে প্রায় ২৫ হাজার কর্মজীবী নারীকে নীতি নির্ধারনের জায়গায় আনা হবে।

এদিকে ওই দিনই প্রদেশটির নারী সাংসদ হিনা পারভেজ বাটের একটি বিশেষ প্রস্তাবও গৃহীত হয়।  প্রস্তাবে পারভেজ বাট সংসদীয় সিদ্ধান্তে নারীর কর্তৃত্ব নিশ্চিত করতে  ‘ পাঞ্জাব নারী সংসদীয় দল’ নামেএকটি কমিটি প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব করেন।

নারীদের ক্ষমতায়নে এ ধরনের বিল পাসকে একটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা আশা করছেন, এর ফলে প্রদেশটির নারীরা পারিবারিক ও সামাজিক নীতি নির্ধারণে ভুমিকা রাখতে পারবেন।

প্রদেশটির এক সাংসদ রাহিলা আনোয়ারের বরাত দিয়ে ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এতে নারীরা বেশি সুবিধা পাবে। তবে গার্হস্থ্য সহিংসতা নেভিগেশন বিলটি এখনও অমীমাংসিত আছে উল্লেখ করে রাহিলা এটির দ্রুত নিষ্পত্তির দাবি করেন।

এদিকে প্রদেশটির বিরোধী দলের পক্ষ থেকে বিলটিকে একটা নির্দিষ্ট শ্রেনীর ক্ষমতায়ন বলে অভিহিত করা হয়েছে।

তাদের দাবি, বিভিন্ন বিভাগে কর্মরত কিছু নারী এমপি এ বিলটি অনুমোদনে সাহায্য করেছে । রাজনৈতিক ভাবে  এর ফলে তারাই উপকৃত হবেন।

তবে বিরোধী দলের নেতা মিয়ান মাহমুদুর রাসেদ বলেন, প্রতিবছর নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা  দশ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রদেশের নারীদের তাই আগে দুর্দশার উন্নতির ব্যবস্থা করা উচিত।

পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি)  ফাইজা মালিক বলেন, সর্বপ্রথম বাড়িতে নারীদের অধিকার দেওয়া উচিত। তারপর উন্নয়নমুলক খাতগুলোতে নারী এমপিদের অংশগ্রহণ যেন নিশ্চিত হয় তার দিকে খেয়াল রাখার কথাও বলেন  তিনি।