মাদারীপুরে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার, সন্দেহে স্ত্রী আটক

madaripur

madaripur_SK001মাদারীপুর সদর উপজেলার দুধখালি ইউনিয়নের চন্ডিবর্দি গ্রাম থেকে বৃহস্পতিবার সকালে বাবুল মাতুব্বর (৪০) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার সন্দেহে স্ত্রী রাণী বেগম, শাশুড়ীসহ ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে মাদারীপুর সদর উপজেলার দুধখালি ইউনিয়নের চন্ডিবর্দি গ্রাম থেকে বাবুল মাতব্বরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বাবুল একই উপজেলার মিঠাপুর গ্রামের সাদেক মাতব্বরের ছেলে। জানাগেছে, রাতে স্বামী স্ত্রী একই ঘরে ঘুমিয়ে ছিলো। সকালে স্ত্রীর চিৎকারে এলাকাবাসী এসে বাবুলের লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে ঘরের মধ্যে চকির উপর থেকে বাবুলের মৃত দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে পাঠায়। নিহত বাবুলের গলায় ও শরীরের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ সময় নিহতের স্ত্রী রাণী বেগমের সন্দেহজনক আচরণ দেখে পুলিশ তাকে আটক করে। এই ঘটনায় নিহতের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন পাশের বাড়ির আনোয়ারা বেগমের ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতের স্ত্রী রাণী বেগম, শ্যালিকা সাগরিকা, রঞ্জনা, শাশুড়ী আরজিনা বেগম ও প্রতিবেশী আনোয়ারা বেগমকে আটক করেছে।

মাদারীপুরের সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আবু বকর সিদ্দিক জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে নিহতের স্ত্রী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনই এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত। এই ঘটনায় মামলা হয়েছে।

সাকি/